News71.com
 Sports
 14 Jun 16, 07:09 PM
 594           
 0
 14 Jun 16, 07:09 PM

মার্কিন সামরিক ইতিহাসে বিখ্যাত ছয়টি গোপনীয় ইউনিট

মার্কিন সামরিক ইতিহাসে বিখ্যাত ছয়টি গোপনীয় ইউনিট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ইতিহাসে এমন কিছু গোপন ইউনিট ছিল যেগুলোর কার্যক্রম দশকের পর দশক ধরে দেশটির জনগণের অগোচরেই রয়ে গিয়েছিল। এখনো দেশটির সামরিক বিভাগের যেসব গোপন ইউনিট সক্রিয় রয়েছে তাদের কার্যক্রম সম্পর্কেও মার্কিন জনগণ খুব কমই জানে।

এখানে মার্কিন সামরিক ইতিহাসের সবচেয়ে বিখ্যাত ছয়টি ইউনিট সম্পর্কে তথ্য তুলে ধরা হলো :

১. টাস্ক ফোর্স ৮৮/টাস্ক ফোর্স ব্ল্যাক এরা হয়তো একই গ্রুপ আবার একই গ্রুপ নাও হতে পারে। আর এরা হয়তো এখনো সক্রিয় রয়েছে অথবা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে আছে। ইরাক ও আফগানিস্তানে আল কায়েদার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধের উত্তুঙ্গু অবস্থার দিনগুলোতে টাস্কফোর্স ব্ল্যাক ও টাস্ক ফোর্স ৮৮'র নাম বিশ্ব গণমাধ্যমে ভেসে বেড়াতো। মার্কিন সামরিক বিভাগের এ গোপন ইউনিটটি সেসময় সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান চালাতো। ইউনিটটি যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের যৌথভাবে গড়ে ওঠে। সিল টিম সিক্স, ডেলটা ফোর্স এবং ব্রিটিশ এসএএস'র সেরা সদস্যদের নিয়ে টিমটি গঠিত হয়। ধারণা করা হচ্ছে বর্তমানে ইরাক ও সিরিয়াভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএস-কে ধ্বংস করার জন্য ফের সক্রিয় হয়েছে টাস্ক ফোর্স ব্ল্যাক।

২.৬৪৯৩তম টেস্ট স্কোয়াড্রন/৬৫৯৪তম টেস্ট গ্রুপ মার্কিন বিমানবাহিনীর এ ইউনিটটি ১৯৫৮ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত সক্রিয় ছিল। প্রশান্ত মহাসাগরের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জ থেকে বিমানে চড়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম স্পাই স্যাটেলাইট থেকে পড়া ফিল্ম ক্যানিস্টার বা ছবির বাক্সগুলো ধরাই ছিল এর কাজ। ওই স্পাই স্যাটেলাইটটি ছিল স্নায়ু যুদ্ধকালীন যুক্তরাষ্ট্রের করোনা প্রোগ্রামের অংশ। স্যাটেলাইটটি পৃথিবীকে প্রদক্ষিণরত অবস্থায় সোভিয়েত রাশিয়ার বিভিন্ন তৎপরতার ছবি তুলে বাক্সে ভরে প্যারাসুটে করে সেগুলো প্রশান্ত মহাসাগরের ওপর ছেড়ে দিত। এর সদস্যরা বিমানে করে সেগুলো উদ্ধার করতেন। পানিতে পড়ে যাওয়া বাক্সগুলো উদ্ধার করতেন কোস্ট গার্ড বাহিনীর সদস্যরা। এরকম প্রায় ৪০ হাজার বাক্স উদ্ধার করে টিমটি।

৩. ৭৭৮১ আর্মি ইউনিট/৩৯তম স্পেশাল ফোর্সেস অপারেশনাল ডিটাচমেন্ট মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর বিশেষ সদস্যদের নিয়ে গঠিত গোপন এই টিম ১৯৫৬ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত জার্মানির বার্লিনে সক্রিয় ছিল। পশ্চিম জার্মানিকে কমিউনিস্ট হামলা থেকে সুরক্ষিত রাখার জন্যই এটি কাজ করত। এ ছাড়া পূর্ব জার্মানির কমিউনিস্টরা পশ্চিম জার্মানি দখল করে নিলে তাদের বিরুদ্ধে গণঅসন্তোষ উসকে দেওয়া এবং গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার দায়িত্বও তাদেরকে দেওয়া হয়েছিল। এমনকি এর সদস্যদের কর্মকাণ্ডের ধরন জেমস বণ্ড সিনেমার গোয়েন্দাদের মতোই ছিল!

৪. ডেল্টা ফোর্স/কমব্যাট অ্যাপ্লিকেশনস গ্রুপ/আর্মি কম্পার্টমেন্টেড এলিমেন্টস সন্ত্রাসবাদবিরোধী এ এলিট ফোর্সটি গঠিত হয় ১৯৭৭ সালে। ১৯৮০ সালে অপারেশন ঈগল ক্ল নামের একটি ভয়াবহ ব্যর্থ অভিযানের মাধ্যমে এর কার্যক্রম শুরু হয়। অবশ্য এরপর পানামা অভিযান থেকে শুরু করে, উপসাগরীয় যুদ্ধ এবং আফগানিস্তানের তোরাবোরা পাহাড়ে ওসামা বিন লাদেনকে তাড়া করার মতো বেশ কয়েকটি অভিযানে সাফল্য দেখায় ডেল্টা ফোর্স। এখনো এটি সক্রিয়। তবে এর সকল কার্যক্রম পুরোপুরি গোপন রাখা হয়।

৫. সিল টিম ৬/ডেভগ্রু সিল টিম ৬ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবাদবিরোধী যুদ্ধের বিশেষায়িত একটি সামরিক ইউনিট। এ ছাড়া যুদ্ধক্ষেত্রে শত্রুদের অবস্থান নির্ণয় করে সে অনুযায়ী সামরিক কৌশল নির্ধারণ, জিম্মি উদ্ধার এবং ঘনিষ্ঠ প্রতিরক্ষা মিশন পরিচালনায় কাজও করে টিমটি। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে ৯/১১-র সন্ত্রাসী হামলার পরে এর বাজেট এবং দায়িত্বও বাড়ানো হয়। বর্তমানে এ টিমে ১৮০০ জন সদস্য রয়েছেন। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজন নারী সদস্যও রয়েছেন যারা গোয়েন্দা হিসেবে কাজ করেন। টিমটি ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা এবং সোমালি জলদস্যুদের হাত থেকে ক্যাপ্টেন ফিলিপসকে উদ্ধার অভিযানে সাফল্য প্রদর্শনের জন্য সবচেয়ে বেশি খ্যাতি পেয়েছে। ১৯৮১ সাল থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের এ গোপন সামরিক ইউনিটটি সক্রিয়।

৬.দ্য ওএসএস/দ্য ওস দ্য ওএসএস বা দ্য অফিস অফ স্ট্র্যাটেজিক সার্ভিস নামের এ গোপন টিমটি গঠিত হয় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়, ১৯৪২ সালে। এর কাজ ছিল যুদ্ধের কৌশলগত তথ্য সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করা এবং অন্য এজেন্সিগুলো করতে অপারগ- এমন সব বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বিশেষ বাহিনীর সংখ্যা ছিল খুবই কম। ফলে এর ঘাড়ে দায়িত্বও ছিল অনেক। বিশেষ গোপন অভিযান চালানো, অক্ষশক্তির দখল করা অঞ্চলে গণপ্রতিরোধ উস্কে দেওয়া এবং গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহের মতো বহুমুখী কাজ করত এটি। এমনকি এটি যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ইতিহাসে সর্বপ্রথম 'সমুদ্র, আকাশ ও স্থল'- এই তিনপথেই অভিযান চালাতে সক্ষম কমাণ্ডো বাহিনী তৈরি করে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন