sports
 11 Apr 16, 10:45 AM
 294             0

নেইমারের বেতন এত কম !!!

নেইমারের বেতন এত কম !!!

স্পোর্টস ডেস্কঃ ৩৯ গোল ও ৭টি এসিস্ট বেশি মূল্যবান, নাকি ১৪ গোল ও ৬টি এসিস্ট । আচ্ছা, ব্যক্তিগত সাফল্য পরে টানা যাক, দলীয় সাফল্য নিয়েই আলোচনা করা হোক, কে বেশি মূল্যবান? একজন ট্রেবল জেতানো খেলোয়াড়, নাকি শূন্য হাতে ফেরা একজন । এতক্ষণে প্রথম খেলোয়াড়কে চিনে ফেলার কথা—বার্সাকে ত্রিমুকুট জেতানোর অন্যতম নায়ক নেইমার । অন্যজন ওয়েইন রুনি ।

প্রশ্ন উঠতে পারে, হঠাৎ দুজনের তুলনায় নাম কেন? নামাচ্ছে তাঁদের বেতনের তুলনা। ক্লাব ফুটবলে বর্তমানে সবচেয়ে আকাঙ্ক্ষিত নাম নেইমার। তাঁকে দলে পেতে রীতিমতো লাইন দিয়েছে বড় বড় ক্লাবগুলো। মেসি, রোনালদোর পর সবচেয়ে প্রভাবশালী ফুটবলার। সে অনুযায়ী তাঁর বেতন-ভাতাও ওরকম হওয়ার কথা। কিন্তু চমকে ওঠার মতো এক তথ্য দিয়েছে ফুটবল লিকস। নেইমারের চুক্তি থেকে জানা যাচ্ছে, প্রতি মৌসুমে বেতন হিসেবে বার্সেলোনা তাঁকে ৫ মিলিয়ন ইউরো দেয়। আর গত দুই মৌসুম প্রায় ‘শুয়ে-বসে’ কাটানো রুনির বেতন? প্রায় ১৬ দশমিক ৮৬ মিলিয়ন ইউরো, নেইমারের তিন গুণের বেশি! এমএসএনের মূল অস্ত্র মেসির বেতন যেখানে ২২ মিলিয়ন ইউরো ।

বেতন কম পেলেও অবশ্য বিভিন্ন ভাতা প্রাপ্তিতে নেইমার কিন্তু বেশ ভালো সুবিধাই পাচ্ছেন কাতালান ক্লাবটি থেকে। বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার সময় চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য ৮৫ লাখ ইউরো পেয়েছিলেন। এ ছাড়া প্রতি মৌসুমেই তাঁর জন্য বিভিন্ন ভাতা পাওয়ার সুযোগ আছে। অবশ্য সবই নেইমারের ওপর নির্ভর করছে। অর্থাৎ মাঠের খেলা দিয়েই তাঁকে এসব আদায় করে নিতে হবে। যার অধিকাংশ অবশ্য নেইমারের জন্য হাতের মোয়া।

বার্সেলোনার কাছ থেকে এক মৌসুমে নেইমারের যেসব বোনাস পাবেন, সেটিও জানিয়ে দিয়েছে ফুটবল লিকসঃ

– প্রতি মৌসুমেই ১ লাখ ইউরো (১ দিন মাঠে না নামলেও!)

– ৬০ ভাগ (কমপক্ষে ৪৫ মিনিট মাঠে থাকতে হবে) ম্যাচ খেললেই পাবেন ১০.৬২ লাখ ইউরো।

– বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা পেলে ৬.৩৭৫ লাখ ইউরো।

– চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্ব পার হলেই ৪.২৫ লাখ ইউরো।

– লা লিগা শিরোপা জয়ে ৬.৩৭৫ লাখ ইউরো।

– কোপা ডেল রের শিরোপা জয়ে ৮.৫০ লাখ ইউরো।

– চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ে ৮.৫০ লাখ ইউরো।

– শুধু কোপা ডেল রে ও চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতলে বাড়তি ১০.৬২ লাখ ইউরো।

– ট্রেবল জিতলে ১৭ লাখ ইউরো।

– ব্যালন ডি’অর পেলে ৪.২৫ লাখ ইউরো।

সব মিলিয়ে বেতনের চেয়ে নেইমারের বোনাসের অঙ্কটাই ভারী মনে হচ্ছে! ও আরেকটি ব্যাপার, নেইমারকে কিনতে চাইলে কত খরচ করতে হবে, তা নিয়ে তো কানাঘুষা কম হলো না। ফুটবল লিকস নিশ্চিত করল, নেইমারের রিলিজ ক্লজ ১৯ কোটি ইউরো! অর্থাৎ বার্সেলোনার অমতে নেইমারকে কিনতে চাইলে দলবদলের বিশ্বরেকর্ড শুধু ভাঙলেই হবে না, সেটি প্রায় দ্বিগুণ অঙ্ক খরচ করতে হবে পিএসজি ও ম্যানচেস্টার সিটিকে ।

বিভিন্ন গোপন নথি ফাঁস করে দিয়ে আলোচনায় আসা উইকিলিকসের মতো ফুটবল লিকসও বেশ কিছুদিন ধরে ফুটবলসংক্রান্ত অনেক গোপন তথ্য ফাঁস করে আসছে। এবারের তথ্য থেকে অনুমান করে নিতে পারেন, বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তি করতে কেন এত গড়িমসি করছেন নেইমার। এত ‘কম’ বেতন পেলে কি চলে ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')