international
 04 Apr 16, 11:53 AM
 213             0

রাষ্ট্রপ্রধানদের কর ফাঁকি ও সম্পদ গোপনের তথ্য ফাঁস করল মোওস্যাক ফনসেকা ।।

রাষ্ট্রপ্রধানদের কর ফাঁকি ও সম্পদ গোপনের তথ্য ফাঁস করল মোওস্যাক ফনসেকা ।।

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সম্পদ গোপন রাখতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ৭২ জন বর্তমান ও সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান কর ফাঁকি দিয়েছেন। মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারক, লিবিয়ার সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান মুয়াম্মার গাদ্দাফী এবং সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ এই তালিকায় রয়েছেন । মধ্য আমেরিকার দেশ পানামার একটি আইনি প্রতিষ্ঠান মোওস্যাক ফনসেকার ফাঁস হওয়া গোপন নথি থেকে এই তথ্য জানা গেছে ।

পানামার আইনি প্রতিষ্ঠান মোওস্যাক ফনসেকার এক কোটি ১০ লাখ গোপন নথি ফাঁস হয়েছে। অর্থ পাচার, বিভিন্ন রকম নিষেধাজ্ঞা ও ট্যাক্স ফাঁকি দিতে ওই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে মক্কেলদের পরামর্শ দেওয়ার প্রমাণ এই নথিগুলো থেকে পাওয়া গেছে । এছাড়া ব্যাংকের মাধ্যমে প্রায় ১০০ কোটি ডলার অর্থ পাচারের সঙ্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ সহযোগীর সম্পর্ক রয়েছে- এমন তথ্যও পাওয়া গেছে ।

নথিগুলো থেকে আরও জানা গেছে, নিজেদের সম্পদের পরিমাণ গোপন রাখতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, ধনী ও ক্ষমতাবান ব্যক্তিরা বিভিন্ন কৌশলে কর ফাঁকি দিয়েছেন। ফাঁস হওয়া নথির তথ্য ছড়িয়ে পড়ায় কর ফাঁকির বিষয়ে বিশ্বব্যাপী নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে । এই নথি ফাঁসের মাধ্যমে নিজেদের সম্পদের বিবরণ লুকিয়ে রাখতে ধনী ও ক্ষমতাবান ব্যক্তিদের কর ফাঁকির কৌশল সম্পর্কে বিস্তারিত জানা গেছে। নথিগুলো ফাঁস হওয়ার মাধ্যমে মক্কেলদেরকে অর্থ পাচার ও কর ফাঁকি বিষয়ে মোওস্যাক ফনসেকার আইনি সহায়তার প্রমাণ পাওয়া গেছে ।

মক্কেলদের বিষয়ে গোপনীয়তা রক্ষাকারী হিসেবে পৃথিবীর অন্যতম আইনি প্রতিষ্ঠান মোওস্যাক ফনসেকা। প্রতিষ্ঠানটি পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কোনো রকম প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই গত ৪০ বছর ধরে ব্যবসা পরিচালনা করছে তারা। ব্যবসার শুরু থেকে এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের সমস্যা বা সংকটে পড়তে হয়নি প্রতিষ্ঠানটিকে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা মক্কেলদের কাছে মোওস্যাক ফনসেকার বিশেষ সুনামও রয়েছে ।

ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টসের (আইসিআইজে) ডিরেক্টর জেরার্ড রাইল বলেন, গত ৪০ বছর ধরে মোওস্যাক ফনসেকার করা সব কাজের নথি ফাঁস হয়েছে। বিভিন্ন দেশের মোট ৭২ জন বর্তমান ও সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান নিজেদের দেশের সম্পদ লুণ্ঠনের বিষয়ে প্রমাণ রয়েছে মোওস্যাক ফনসেকার কাছে ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')