health
 27 Jul 16, 12:52 PM
 206             0

নতুন প্রোটিনের সন্ধান, এবার কি সারবে অ্যালঝাইমার্স?

নতুন প্রোটিনের সন্ধান, এবার কি সারবে অ্যালঝাইমার্স?

হেলথ ডেস্কঃ   অ্যালঝাইমার্স রোগীদের ক্ষেত্রে সাধারণত দেখা যায় নার্ভ সেল বা স্নায়ুকোষগুলো মরে যাচ্ছে। কিন্তু কেন এমন হয়, তা গবেষকদের আজও ধাঁধায় রেখে দিয়েছে। বিজ্ঞানীদের দাবি, সেই অজানা রহস্যেরই সন্ধান দিতে চলেছে গবেষণাগারে বানানো বিশেষ এক প্রোটিন। প্রোটিনটি স্নায়ুকোষ মৃত্যুর কারণ বুঝতে সাহায্য করবে। ফলে, আগামী দিনে অ্যালঝাইমার্স আক্রান্তদের চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে চলেছে বিশেষ এই প্রোটিনটি।

 

অ্যালঝাইমার্স রোগীদের ক্ষেত্রে দেখা যায়, অ্যামিলেড-বেটা (এবেটা) প্রোটিন জোড় বেঁধে অ্যামিলয়েড ফাইব্রিলস তৈরি করে। যার জন্য নিউরোন ও ব্রেইনের মাঝে একটি পিণ্ড বা ডেলা তৈর হয়। গবেষকরা মনে করছেন, এই জোড়া প্রোটিনের ডেলাই মস্তিষ্কের কোষগুলো মরে ফেলে। যার জেরে রোগীর অ্যালঝাইমার্স দেখা যায়।

 

কিন্তু, কেন এই দুটি বিশেষ প্রোটিন (অ্যামিলেড-বেটা)-এর 'স্টিকনেস' কোষের মৃত্যু ঘটাচ্ছে, বিজ্ঞানীদের কাছে তা এখনো দুর্বোধ্য। চিটচিটে হওয়ার কারণেই এমন হচ্ছে কি না, তা বোঝার চেষ্টা করছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁদের আরও দাবি, অ্যামিলেড ও বেটা যখন একা থাকে, তখন এরা কেউই কিন্তু চিটালো নয়।

 

সম্প্রতি সাসেস্ক বিশ্বাবিদ্যালয়ের গবেষকরা যে নতুন প্রোটিনটি তৈরি করেছেন, তার সঙ্গে এবেটা প্রোটিনের কিছু বৈশিষ্ট্যের মিল রয়েছে। আকার ও আয়াতনও এক। তবে, কনটেন্ট হিসেবে নতুন প্রোটিনটিতে অন্য অ্যামাইনো অ্যাসিড রয়েছে। যার দরুন এই নতুন প্রোটিনটি কখনোই অ্যামিলয়েড ফাইবার বা চিটালো পিণ্ড সৃষ্টি করে না। স্নায়ুকোষে এটি এবেটার মতো টক্সিও নয়।

 

এই গবেষক দলের প্রধান কারেন মার্শালের দাবি, অ্যালঝাইমার্স আক্রান্তদের মস্তিষ্কের প্রোটিন এবেটা নার্ভসেলকে কীভাবে মেরে ফেলছে, তা একবার বুঝে নিতে পারলেই, অ্যালঝাইমার্সের যথাযথ চিকিত্‍‌সা করা সম্ভব হবে। জার্নাল সায়েন্টিফিক রিপোর্টে সম্প্রতি এই গবেষণার বিশদ প্রকাশিত হয়েছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')