bangladesh
 04 Aug 19, 12:42 PM
 74             0

খালেদা ক্ষমতায় থেকেও জিয়া হত্যার বিচার চাননি, সাক্ষ্য দেননি॥ বেগম মতিয়া চৌধুরী

খালেদা ক্ষমতায় থেকেও জিয়া হত্যার বিচার চাননি, সাক্ষ্য দেননি॥ বেগম মতিয়া চৌধুরী

নিউজ ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার আমলে বঙ্গবন্ধু হত্যা, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনার বিচার হয়েছে। কিন্তু বিএনপি ক্ষমতায় থেকেও জিয়াউর রহমানের হত্যার বিচার করেনি। খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন রাষ্ট্র ক্ষমতায় থেকেও তার স্বামী হত্যার বিচার হোক তা চাননি। তিনি আর তার ছেলে সাক্ষ্য দেননি । বেগম মতিয়া চৌধুরী গতকাল শনিবার দুপুরে ফেনীর পরশুরামের ধনিকুণ্ডা আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম দাখিল মাদরাসা মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মতিয়া চৌধুরী বলেন বলেন, খালেদা জিয়া নিজেকে তিন বারের প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন। অথচ তার নিজ নির্বাচনী এলাকায়ও কোনো উন্নয়ন হয়নি। বর্ষা শুরু হলে এলাকার মানুষ মুহুরী-কহুয়া নদীর বেড়ী বাঁধ ভেঙে বন্যার পানিতে তলিয়ে যায়। বরাদ্ধের টাকা তারা লুটেপুটে খেয়েছে। এতিমের টাকা খেয়ে এখন জেলে আছে। সাবেক এই কৃষিমন্ত্রী বলেন, ফেনীর মানুষ ভাতও চায় না, কাপড়ও চায় না। জননেত্রী শেখ হাসিনা গত ১০ বছরে সেটির সমাধান করে দিয়েছেন। এখন ভাত-কাপড়ের অভাব নেই। তারা চায় বন্যা সমস্যার স্থায়ী সমাধান। বিশ্ব মোড়লদের রক্ত চক্ষু উপেক্ষা করে যদি পদ্মা সেতু হতে পারে ফেনীর ফুলগাজী, পরশুরাম ও ছাগলনাইয়ার বন্যা সমস্যারও স্থায়ী সমাধান হবে।

তিনি আরও বলেন, এখানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বাড়ি হলেও তিনি এই বাঁধ বাঁধেননি। তবে এখন আওয়ামী লীগ সরকারের সময় এখানকার নদী খননও হবে, বাঁধও হবে। মানুষের দুর্ভোগ ও দুর্দশা লাঘব হবে। এজন্য শেখ হাসিনার সরকার বরাদ্দ দিয়েছে। পরশুরাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল করিম মজুমদারের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী, কেন্দ্রীয় ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, ফেনী ১ আসনের সাংসদ শিরীন আখতার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফেনী ২ আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুর রহমান প্রমুখ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')