Technology
 22 May 20, 07:40 PM
 167             0

রাতের ঘুটঘুটে অন্ধকারেও যেভাবে দেখা সম্ভব হবে সবকিছু॥

রাতের ঘুটঘুটে অন্ধকারেও যেভাবে দেখা সম্ভব হবে সবকিছু॥

প্রযুক্তি ডেস্কঃ এই সমাজে যারা দৃষ্টিশক্তিহীন তারাই যানে পৃথিবীটা না দেখার অনভূতি কত কষ্টের। ঠিক এ কারণে বিজ্ঞানীরা নিরলস চেষ্টা করে যাচ্ছেন, সেই প্রযুক্তি উদ্ভাবনে, যাতে দৃষ্টিশক্তিহীনদের দৃষ্টিশক্তি ফেরত আনা যায় । ঠিক এই সময়েই এক দল বিজ্ঞানী ঘোষণা দিয়েছেন নতুন একটি কৃত্রিম চোখ নিয়ে তারা কাজ করছেন যা দিয়ে একজন মানুষ রাতের অন্ধকারেও দেখতে পাবেন। হংকংয়ের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ঝিয়ং ফ্যান এই প্রকল্পের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সায়েন্স নিউজকে তিনি বলেছেন, ভবিষ্যতে এটি দৃষ্টিহীন মানুষ ব্যবহার করতে পারবেন। একই সঙ্গে মানুষের মতো দেখতে রোবটেও ব্যবহার করা হবে।

বায়োনিক চোখের এ ধারণা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে ত্রিমাত্রিক কৃত্রিম রেটিনা দিয়ে। মানুষের দৃষ্টির সঙ্গে ব্রেনের যোগাযোগ ক্ষমতার অনুকরণে কাজ করবে এটি। চোখটির নাম দেয়া হয়েছে ইসি-আই বা ইলেক্ট্রোকেমিক্যাল আই। জার্নাল নেচারে প্রকাশিত গবেষণা নিবন্ধে ফ্যান জানিয়েছেন, পাঁচ বছরের মধ্যে মানুষ এটি ব্যবহার করতে পারবে। আমাদের এই চোখ আকারে একদম মানুষের ব্যবহার উপযোগী। যারা অন্ধ অথবা দৃষ্টিশক্তি কোনো কারণে হারিয়েছেন, তারা এটি ব্যবহার করতে পারবেন। তিনি জানান, ছোট আইবলটি অনেক স্পর্শকাতর। রাতেও এটি দিয়ে দেখা যাবে।

চোখে আলো পড়লে মানুষ যত দ্রুত প্রতিক্রিয়া দেখায় এই চোখটি তার চেয়েও দ্রুত সাড়া দেবে। বায়োনিক রেটিনাটি প্রতি বর্গ সেন্টিমিটারে ৪৬০ মিলিয়ন ন্যানোসাইজের সেন্সর ধারণ করতে পারে। সেখানে মানুষের রেটিনার প্রতি বর্গ সেন্টিমিটারে থাকে প্রায় ১০ মিলিয়ন ফটোরেসেপ্টর সেল। চোখটি দিয়ে ছোট বস্তু যেমন বেশি পরিষ্কার দেখা যাবে, তেমনি দূরেও দৃষ্টিশক্তি পরিষ্কার থাকবে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')