Technology
 14 May 20, 11:23 AM
 207             0

জীবাণুনাশক রিমোর্ট কন্ট্রোল চালিত ইউভি-সি সিস্টেম তৈরি ওয়ালটনের॥

জীবাণুনাশক রিমোর্ট কন্ট্রোল চালিত ইউভি-সি সিস্টেম তৈরি ওয়ালটনের॥

নিউজ ডেস্কঃ মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় একের পর এক দরকারি চিকিৎসা সরঞ্জাম তৈরি করছে বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। এবার ওয়ালটন তৈরি করলো মেডিকার্ট রোবট এবং জীবাণুনাশক রিমোর্ট কন্ট্রোল ইউভি-সি সিস্টেম। বৃহস্পতিবার (১৪ মে ২০২০) সরকারের আইসিটি বিভাগকে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য ওই চিকিৎসা সরঞ্জামগুলো হস্তান্তর করবে ওয়ালটন। বিকেল ৩টায় ভিডিও কনফারেন্স অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ আইসিটি বিভাগ এবং ওয়ালটনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। জানা গেছে, ওয়ালটনের তৈরি মেডিকার্ট রোবট ডিভাইসটির মডেল ‘ডব্লিউআরএমসি-৪০০ এপি-২০২০’। এটি সম্পূর্ণভাবে ওয়ালটনের তরুণ ও মেধাবী প্রকৌশলীদের নিজস্ব ডিজাইনে ডেভেলপ করা হয়েছে। এটি আরএফ ফ্রিকোয়েন্সি নিয়ন্ত্রিত একটি অটোমেটিক রোবট। যা ৪০০ মিটার বা ১৩০০ ফুট ব্যাসের এলাকায় বিচরণ করতে পারে এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবে খাদ্য, ওষুধ, চিকিৎসা কিংবা অন্যান্য সরঞ্জাম পরিবহন করতে পারে।

লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি চালিত এ রোবট একবার পূর্ণ চার্জে ৬ ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্নভাবে চলতে পারে।এই রোবট ব্যবহার করে আইসোলেশনে থাকা করোনা ভাইরাস কিংবা অন্যান্য ছোঁয়াচে রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসাসেবা দেওয়া যাবে। চিকিৎসক তার কক্ষে বা পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে বসেই কম্পিউটার, মোবাইল ফোন বা রিমোটের মাধ্যমে এ রোবট নির্দিষ্ট অপারেটরের সাহায্যে অপারেট করতে পারবেন। রোগীকে চিকিৎসাসেবা দিতে পারবেন। এতে বিশেষ ক্যামেরা, মাইক্রোফোন ও স্পিকার সংযুক্ত করা আছে। এর মাধ্যমে চিকিৎসক এবং রোগী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন। চিকিৎসাক্ষেত্র ছাড়াও এই রোবট অফিস-আদালত, শিল্প-কারখানা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, জনসাধারণ সমাগমের স্থান যেমন বিমান কিংবা নৌ বন্দর, বাস-রেল স্টেশন, শপিং মল ইত্যাদি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')