technology
 15 Jul 19, 08:21 PM
 23             0

হুয়াওয়ের নতুন ৫জি সাইটে বিদ্যুৎ খরচ ২০ শতাংশ কম॥

হুয়াওয়ের নতুন ৫জি সাইটে বিদ্যুৎ খরচ ২০ শতাংশ কম॥

প্রযুক্তি ডেস্কঃ ভবিষ্যৎ যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপনে ‘হুয়াওয়ে’ সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব প্রদান করছে টাওয়ার ব্যবস্থাপনায় ব্যবহৃত শক্তির অপচয় রোধ এবং এর কার্যদক্ষতা বৃদ্ধিতে। এই বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে হুয়াওয়ে ৫জি প্রযুক্তির গবেষণা, পণ্য ও প্রকৌশলগত উন্নয়নে নতুন নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন করেছে। হুয়াওয়ের স্থাপন করা প্রতিটি ৫জি সাইটের বিদ্যুৎ খরচ এই খাতে ব্যবহৃত বিদ্যুতের গড়ের তুলনায় ২০ শতাংশ কম। এটি সম্ভব হয়েছে কেবল হুয়াওয়ের উদ্ভাবিত নতুন চিপসেট, সিস্টেম সফ্টওয়্যার, পেশাদার সেবা এবং উন্নত হার্ডওয়্যার এবং তাপ অপচয় নিরোধক প্রযুক্তি দ্বারা। এই উদ্ভাবনী প্রযুক্তিগুলো হুয়াওয়ের ৫জি প্রযুক্তিকে আরও বেশি কার্যদক্ষ করে তুলেছে। চীনে প্রকাশিত হুয়াওয়ে ২০১৮ সালের সাসটেইনেবিলিটি রিপোর্টে গত শুক্রবার এসব তথ্য উঠে আসে। রিপোর্টে হুয়াওয়ে তাদের চারটি কৌশল ব্যাখ্যা করেছে।


কৌশলগুলো হল- ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তি, নিরাপত্তা ও বিশ্বস্ততা, পরিবেশ সুরক্ষা এবং একটি স্বাস্থ্যকর ও সুসংহত পরিবেশ ব্যবস্থা। এছাড়াও বাংলাদেশে হুয়াওয়ের চলমান বিভিন্ন ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচি, মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের উন্নয়নে প্রযুক্তিগত সহায়তা এবং নারীর ক্ষমতায়নে অন্য পার্টনারদের সঙ্গে সম্মিলিতভাবে নারীদের প্রদান করা আইসিটি বিষয়ক শিক্ষা কার্যক্রম গুরুত্ব পেয়েছে এ বছরের রিপোর্টে। রিপোর্ট প্রকাশ ও পরিবেশন অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ের চেয়ারম্যান লিয়াং হুয়া বলেন, হুয়াওয়ে তার গ্রাহকদের আরও অধিকতর সেবা দেয়ার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন করছে। এসব কিছুই আমরা করছি যাতে বিশ্বব্যাপী একটি ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন করা যায়। নতুন এই কৌশলে হুয়াওয়ে ২০১৮ সালে ক্লিন এনার্জি উৎস থেকে প্রায় ৯৩২ মিলিয়ন কিলোওয়াট বিদ্যুৎ ব্যবহার করেছে। এর ফলে বায়ুমণ্ডলে প্রায় ৪ লাখ ৫০ হাজার টন কার্বন কম নিঃসরণ হয়েছে এবং গত বছর সুস্থ ও সুসংহত পরিবেশ প্রদানের জন্য, স্থানীয় টেকসই উন্নয়নে হুয়াওয়ে বিশ্বব্যাপী ১৭৭টি কমিউনিটি সহায়তা প্রোগ্রাম সংগঠিত করে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')