sports
 11 Apr 16, 11:09 AM
 307             0

নতুন মৌসুমের শুরুতেই দারুণ এক রেকর্ড হাতছানি দিচ্ছে সাকিবকে ।।

নতুন মৌসুমের শুরুতেই দারুণ এক রেকর্ড হাতছানি দিচ্ছে সাকিবকে ।।

স্পোর্টস ডেস্কঃ ২০১১ সাল থেকেই শুরু হয়েছে আইপিএল, দেখতে দেখতে ৫ টা বছর কাটিয়ে দিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সে। একই টিমে এতটি বছর রেকর্ড তো আছেই, তার সাথে আইপিএলে আরেকটি রেকর্ড এর দারপ্রান্তে সাকিব। আজ দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হবে কলকাতা নাইট রাইডার্স। নতুন মৌসুম শুরুর আগে দারুন এক রেকর্ড ডাকছে সাকিবকে। আইপিএল ক্যারিয়ারে একই সাথে ৫০০ রান আর ৫০ উকেটের ডাবল রেকর্ড । প্রথম মৌসুম থেকে অযথা তাকে বসিয়ে না রেখে আরও বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ দিলে রেকর্ডটা হয়ে যেত পারত আরও দুই বছর আগেই। তারপর চলতি মৌসুমেই ডাবল রেকর্ড অর্জন করতে চাই আর মত্র ১২৩ রান ও ১২ উইকেট ।

তার আগে দেখে নিন, বিগত ৫ বছরে সাকিবের যত অর্জন –

২০১১ সাল – ৭ ম্যাচ খেলে ২৯ রান, একটিতে অপরাজিত, সর্বোচ্চ রান ২৬, এভারেজ ১৪.৫০। ৭ ম্যাচে ১৫৩ টি বল করে ১৭৫ রান দিয়েছেন সাকিব, উইকেট নিয়েছেন ১১ টি।

২০১২ সাল – ৮ ম্যাচ খেলে ৯২ টি রান, ১ টি তে অপরাজিত, সর্বোচ্চ ৪২ রান, এভারেজ ১৫.১৬ বোলিংয়ে ৮ ম্যাচে ১৮০ বল করে ১৯৫ রান দিয়েছেন, উইকেট পেয়েছেন ১২ টি।

২০১৪ সাল – ১৩ ম্যাচে ৪ বার অপরাজিত, রান করেছেন ২২৭, সর্বোচ্চ ৬০ রান, এভারেজ ৩২.৪২। বোলিংয়ে ১৩ ম্যাচে ৩০০ বল খেলে রান দিয়েছেন ৩৩৪, উইকেট পেয়েছেন ১১ টি।

২০১৫ সাল – ৪ ম্যাচে ৩৬ রান, সর্বোচ্চ ২৩ রান, এভারেজ ১২ রান বোলিংয়ে ৪ ম্যাচে ৮৪টি বল করে ১২৩ রান দিয়েছেন, উইকেটসংখ্যা ৪।

পরিসংখ্যান দেখে, বুঝতেই পারছেন সাকিবের একসাথে ৫০০ রান ও ৫০ উইকেটের মালিক হতে আর মাত্র ১২৩ টি রান ও ১২ টি উইকেট দরকার। আইপিএল এ একসাথে ৫০০ রান ও ৫০ উইকেট নেওয়া প্লেয়ার রয়েছেন ৮ জন-

১. ডোয়াইন ব্রাভো – ৭৯ ম্যাচ ২. হরভজন সিং -১০১ ম্যাচ ৩. রবিচন্দ্র জাদেজা – ৯৯ ম্যাচ ৪. জ্যাক কালিস – ৯৮ ম্যাচ ৫. এলবি মর্কেল – ৮৬ ম্যাচ ৬. ইরফান পাঠান – ৯৮ ম্যাচ ৭. কিরণ পোলার্ড – ৮৩ ম্যাচ ৮. হোয়াটসন – ৭০ ম্যাচ আইপিএলে সাকিব এই পর্যন্ত ৩২ টি ম্যাচ খেলেছেন, যেখানে অন্যদের এই রেকর্ড ছুতে দ্বিগুণের ও বেশি সময় নিয়েছেন, এই আসরেই যদি ব্যাট হাতে ১২৩ রান ও বোলিংয়ে ১২ উইকেট লুফে নিলে নতুন কিছু অপেক্ষা করছে সাকিবের জন্য ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')