News71.com
 Bangladesh
 26 Jun 22, 11:10 AM
 1109           
 0
 26 Jun 22, 11:10 AM

বিপৎসীমার নিচে নামেনি কুশিয়ারা পানি।।

বিপৎসীমার নিচে নামেনি কুশিয়ারা পানি।।

নিউজ ডেস্কঃ ভারী বর্ষণ ও উজানের নেমে আসা ঢল ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়ে সিলেট ও সুনামগঞ্জ। দুই জেলার মধ্যে সিলেট নগরীসহ ১৩ উপজেলা ৮০ ভাগ এবং সুনামগঞ্জ জেলার অন্তত ৯০ ভাগ এলাকা প্লাবিত হয়।   বন্যায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন ৪০ ভাগ মানুষ। বিপর্যয় নেমে আসে যোগাযোগ, বিদ্যুৎ ও নেটওয়ার্ক ব্যবস্থায়। বর্তমানে সুরমা, ধলাই, পিয়াইন, সারি নদীর পানি কমতে থাকায় বন্যা পরিস্থিতি উন্নতির দিকে রয়েছে। অন্যদিকে কুশিয়ারার পানি বেড়ে প্লাবিত হয়েছে সিলেটের ছয়টি উপজেলা, প্লাবিত হয়েছে মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার বিস্তীর্ণ অঞ্চল। শনিবার (২৫ জুন) সারা দিনেও সুরমার পানি ১/৩ সেন্টিমিটার করে কমলেও এখনো বিপৎসীমার নিচে নামেনি। আর কুশিয়ারার পানিও বিপৎসীমার ওপরে স্থিতাবস্থায় রয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্য মতে, শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কানাইঘাট পয়েন্টে সুরমার পানি বিপৎসীমার ৭৯ সেন্টিমিটার ওপরে ও সিলেট পয়েন্টে বিপৎসীমার ২ সেন্টিমিটার নীচে নেমে আসে। যদিও এদিন সকাল ৬টায় এই পয়েন্টে নদীর পানি বিপৎসীমার তিন সেন্টিমিটার ওপরে ছিল। এছাড়া কুশিয়ারা নদীর পানি বেড়ে শেওলা পয়েন্টে সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৩ দশমিক ৬৯ অর্থাৎ বিপৎসীমার ৬৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। আর ফেঞ্চুগঞ্জে কুশিয়ারার পানি বিপৎসীমার ৯ সেন্টিমিটার ওপরে রয়েছে। সকাল ৬টা থেকে সারা দিনে পানি কমেছে মাত্র ১ সেন্টিমিটার। সংশ্লিষ্টরা জানান, সুরমার পর কুশিয়ারার পানি বৃদ্ধির কারণে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। তবে গেল ২/৩ দিন ভারী বর্ষণ না হওয়ায় পানি ধীরে ধীরে নামতে শুরু করেছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন