bangladesh
 03 Mar 18, 07:13 AM
 344             0

জামালগঞ্জে পাকনা হাওর রক্ষার বাঁধ পরিদর্শন

জামালগঞ্জে পাকনা হাওর রক্ষার বাঁধ পরিদর্শন

সাইফ উল্লাহ: হাওরের বাঁধ হবে ডালু গোড়ায় যত ফুট প্রশস্ত চুড়ায় তার অর্ধেক তবেই হবে চালু’ সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার হাওরের ফসল রক্ষার বাঁধ পরিদর্শন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার ফেনারবাক ইউনিয়নের হাওর রক্ষা বাঁধ পরিদর্শন করা হয়। পরিদর্শন কালে জানাযায়, জামালগঞ্জ উপজেলায় ১শত টি পিআইসি রয়েছে এর মধ্যে বেহেলী ইউনিয়নে ৫২টি, ফেনারবাক ইউনিয়নে ৩৫টি, জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নে ৫টি, সদর ইউনিয়নে ১টি, ভীমখালী ইউনিয়নে ৪টি, সাচনা বাজার ইউনিয়নে ৩টি। একশত পিআইসিতে চুড়ান্ত প্রকল্পের বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১৭ কোটি টাকার উপর। এ সকল কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য ড্রাম ট্রাক ও এক্রোাভেটর সহ অর্ধশত। এসকল বাঁধের কাজ আগামী ৮ মার্চ এর মধ্যে শেষ করতে হবে বলে জানা সংশ্লিষ্ট পিআইসিরা। ফেনারবাক ইউনিয়নের মোট কাজের মধ্যে ৯৭% কাজ সমাপ্ত হয়েছে। অনুসন্ধানে জানাযায়, ফেনারবাক ইউনিয়নের প্রকল্প নং ৪৮, পিআইসি শ্রীকান্তা তালুকদার, পাকনা হাওরের প্রকল্প ৫৯০ মিটার, প্রকল্প ব্যয় ১২ লক্ষ ৫০ হাজার ৪২৫ টাকা। পিআইসি মাহমুদ আলী, প্রকল্প নং ৩২, দুরত্ব ৯২৬ মিটার, প্রকল্প ব্যয় ১৫ লক্ষ ২৪ হাজার ৫৮৩ টাকা, প্রকল্প নং ৩৪, পিআইসি জয়শেন সরকার, ৯৫২। প্রকল্প নং ৪৪, পিআইসি দিপক তালুকদার, দুরত্ব ৫শত মিটার, ব্যয় ১১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। প্রকল্প নং ৩৩, পিআইসি রফিকুল ইসলাম রানা, প্রকল্প ব্যয় ৬ লক্ষ ৯৫ হাজার টাক, দুৃরত্ব ২৯৪ মটিার। ফেনারবাক ইউপি আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম রানা বলেন, সরকারী বিধি মোতাবেক কাজ শুরু করেছি। এখন প্রায় কাজ শেষ আমি ও আমার সাথে পিাইসি সদস্য শিপন, জিয়াউদ্দিন, সুরমান উদ্দিন সহ শ্রমিকদের নিয়ে এক সঙ্গে নিজে কাজ করছি। বাঁধে এখন ঘাস লাগাচ্ছি। বাঁধর কাজ সঠিক ভাবে সম্পন্ন হবে ইনশাল্লাহ।

এছাড়াও উপজেলার ফেনারবাক, ভীমখালী, বেহেলী ইউনিয়নের পিআইসিদের বিভিন্ন হাওর রক্ষা বাঁধ পরিদর্শন করেন জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শামীম আল ইমরান। এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাচনা বাজার ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম শামীম, পাউবো শাখা কর্মকর্তা নিহার রঞ্জন দাস, ফেনারবাক ইউপি চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু তালুকদার, জামালগঞ্জ উপজেলার সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মো. ওয়ালী উল্লাহ সরকার, ভীমখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. দুলাল মিয়া, ইউপি সচিব অজিত কুমার রায় প্রমূখ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')