bangladesh
 24 Oct 17, 09:35 AM
 345             0

জামালগঞ্জের সুরমা নদীতে গানে গানে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ

জামালগঞ্জের সুরমা নদীতে গানে গানে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ

সাইফ উল্লাহ: কোন মেস্তুরি নাও বানাইলো কেমন দেখা যায়, ঝিলমিল ঝিলমিল করে রে ময়ূরপঙ্খী নায়’ বাউল স¤্রাট শাহ আবদুল করিমের গানের সুরে সুরে মঙ্গলবার বিকালে জামালগঞ্জ উপজেলার সুরমা নদীতে এমনই ঝিলমিল করছিল একাধিক নৌকা। নৌকায় মাঝিদের কণ্ঠে ছড়িয়ে পড়েছিল গ্রামবাংলার চিরন্তন আঞ্চলিক সারি গান। ঢাক-ঢোল আর করতালের তালে তালে সুরের মুর্ছনায় হারিয়ে গিয়েছিল হাজারো উৎসুক দর্শকও। সব মিলিয়ে মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সুরমা এলাকায় বিরাজ করছিল আনন্দঘন দৃশ্য। পুরষের পাশাপাশি নারী দর্শকদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মত।
উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জামালগঞ্জ সুরমা নদীতে মঙ্গলবার ১ম আন্ত ইউনিয়ন নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা শেষে পুরুস্কার বিতরনী সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামীম আল ইমরানের সভাপতিত্বে ও সহকারী কমিশনার ভুমি মনিরুল হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো.সাবিরুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার বরকত উল্লাহ খান। নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান হাফিজা আক্তার দিপু,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন,উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ আলী,সাধারণ সম্পাদক এম নবী হোসেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ড. সাফায়েত আহমেদ সিদ্দিকী, উপজেলা প্রকৌশলী শিপলু কর্মকার,অফিসার ইনচার্জ আবৃল হাশেম,সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. শহিদুল্লাহ,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইউসুফ আল আজাদ, ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম শামীম, করুনা সিন্ধু তালুকদার, মো.রজব আলী, মো.দুলাল মিয়া, সাজ্জাদ মাহমুদ তালুকদার সাজিব, অসিম কুমার তালুকদার প্রমূখ।
নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় বিজয়ী সাচনাবাজার ইউনিয়ন ও রার্নাস আপ ফেনারবাক ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের হাতে বিজয়ী ও রার্নাসআপ দলকে পুরস্কার তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো: সাবিরুল ইসলাম।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')