Bangladesh
 30 Jul 20, 12:38 AM
 16             0

প্রতারক সাহেদকে তৃতীয় দিনেও র্যাব ৬ সদর দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ॥

প্রতারক সাহেদকে তৃতীয় দিনেও র্যাব ৬ সদর দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ॥


খুলনা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরায় দায়ের হওয়া অস্ত্র আইনের মামলায় রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মোহাম্মদ সাহেদ করিমকে তৃতীয় দিনের মত জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। দফায় দফায় তাকে অস্ত্রসহ বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও তেমন কোন তত্য তিনি র‌্যাবকে দিচ্ছেন না বলে জানা গেছে। র‌্যাব- ৬ এর সাতক্ষীরা ক্যাম্প কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার বজলুর রশিদ বুধবার দুপুরে জানিয়েছেন সোমবার সাহেদ করিমকে ু জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। সাতক্ষীরায় দায়ের হওয়া মামলায় জব্দ অস্ত্র ও গুলির তথ্য জানাসহ নানা বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। রিমান্ড শেষে তাকে সাতক্ষীরা আদালতে হাজির করা হবে। সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে ঢাকা থেকে খুলনায় আনা হয়েছে।

 

করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট প্রস্তুতকারী রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদ করিম আত্মগোপন করেছিলেন। এরপর ১৫ জুলাই সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কমলপুর গ্রামের ইছামতি খালে নৌকায় ভারতে পালানোর সময় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন সাহেদ। এ সময় তার কাছ থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে সাতক্ষীরায় অস্ত্র আইনে মামলা করে র‌্যাব। করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেয়া রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মোহাম্মদ সাহেদ করিমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে খুলনায় আনা হয়েছে। সোমবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় সাহেদকে বহনকারী গাড়ী খুলনা র‌্যাব-৬ সদর দপ্তরে পৌঁছায়। এর আগে ২৩ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম সাতক্ষীরার ভার্চুয়াল আদালতে সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। রোববার (২৬ জুলাই) আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার রায় শুনানি শেষে সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')