bangladesh
 02 Nov 19, 03:56 PM
 55             0

ফুটবল ম্যাচ নিয়ে কুয়েটে মারামারি॥ অনিদৃষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ

ফুটবল ম্যাচ নিয়ে কুয়েটে মারামারি॥ অনিদৃষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ


নিউজ ডেস্ক: গতকাল পহেলা নভেম্বর শুক্রবার খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্ত হল ফুটবল প্রতিযোগিতা চলাকালীন সময়ে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ও ছাত্র_ছাত্রীদের হল ত্যাগের ঘোষণা জারি করা হয়েছে। জানাগেছে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বিকাল ৪ টায় আন্ত:হল ফুটবল টুর্নামেন্টে র বাছাই পর্বের সর্বশেষ ম্যাচটি শুরু হয়। অমর একুশে হল বনাম ডক্টর এম এ রশিদ হল। খেলায় আমন্ত্রিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। এদের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক (সাদমান নাহিয়ান খান সেজান), যুগ্ম সম্পাদক ১ (মুহাম্মদ রাইয়ান) স্বশরীরে খেলায় উপস্থিত ছিলেন।


খেলার শুরু থেকেই একদল সমর্থক রেফারিকে নানান হুমকি ধুমকি দেয়া হয়। এসময় রেফারি খেলা পরিচালনায় অপারগতা প্রকাশ করলেও কুয়েটে র director of student welfare এর আশ্বাসে রেফারি খেলা পরিচালনা করেন। এবং যথাসময়ে খেলা শেষ করেন। খেলা শেষ হওয়ার সাথে সাথেই অমর একুশে হলের কতিপয় খেলোয়াড রেফারির ওপর হামলা শুরু করে। কিছুক্ষণের মধ্যেই আরো খেলোয়াড় এই দাঙ্গায় অংশ নেয়। এই হামলায় গুরুতর আহত রেফারিকে দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থা গুরতর দেখে তাকে পরবর্তীতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাপাতালে স্থানান্তর করা হয়।


এর পরিপ্রেক্ষিতে এই হামলার রেশ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পসের বাইরেও ছড়িয়ে পড়ে। রেফারির উপর এই বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে খুলনা মহানগরের সাধারণ মানুষ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। বিষয়টি বুঝতে পেরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার স্বার্থে খুলনা সিটি করপোরশনের মেয়র এর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির আলোচনা হয়। তাদের মধ্যকার দীর্ঘ আলোচনার পর গতরাত ১১ টার দিকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়। এবং আজ ২ নভেম্বর বিকাল ৫ টার মধ্যে ছাত্রছাত্রীদের হল ত্যাগের ঘোষণা দেওয়া হয়। খুলনা প্রোকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সাধারণ ছাত্রই এই পরিস্থিতির তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করে ও এই ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের সনাক্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')