bangladesh
 05 Sep 19, 10:45 AM
 25             0

ইচ্ছাকৃত শিশুর শরীর ঝলসে দেওয়া মামলায় বৃদ্ধার ১৪ বছরের কারাদণ্ড॥

ইচ্ছাকৃত শিশুর শরীর ঝলসে দেওয়া মামলায় বৃদ্ধার ১৪ বছরের কারাদণ্ড॥

নিউজ ডেস্কঃ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় ফুটন্ত গরম পানি নিক্ষেপ করে শিশুর শরীর ঝলসে দেওয়া মামলায় বালা খাতুন (৬০) নামে এক বৃদ্ধার চৌদ্দ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই রায়ে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। বুধবার (০৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাব্যুনালের বিচারক মুন্সি মো. মশিয়ার রহমান আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত বালা খাতুন ভেড়ামারা উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত জবান কারিগরের স্ত্রী।

জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৪ অক্টোবর বিকেলে ভেড়ামারা উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের মো. শামীম হোসেনের নাতনি রাফিয়া খাতুন (৯) প্রতিবেশী আসামি বালা খাতুনের নাতি লিখনের সঙ্গে মারামারি করে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বালা খাতুন রফিয়ার গায়ে ফুটন্ত গরম পানি নিক্ষেপ করেন। এতে শিশু রাফিয়ার দেহ ঝলসে যায়। এ মামলার তদন্ত শেষে আসামি বালা খাতুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। শুনানি ও সাক্ষ্যপ্রমাণে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বালা খাতুনের চৌদ্দ বছর সশ্রম কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন আদালত।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')