bangladesh
 08 Jun 19, 12:46 PM
 69             0

চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ কর্মকর্তা জামাইয়ের হাতে শাশুড়ি খুন॥

চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ কর্মকর্তা জামাইয়ের হাতে শাশুড়ি খুন॥

নিউজ ডেস্কঃ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় পারিবারিক কলহের জের ধরে জামাই অসীম ভট্টাচার্যের হাতে শাশুড়ি খুন হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে সদর উপজেলার মাদ্রাসাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুইজন আহত হয়েছেন। তাদের কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত শেফালী অধিকারী আলমডাঙ্গার মাদ্রাসাপাড়ার সদানন্দ অধিকারীর স্ত্রী। আহতরা হলেন- ঘাতক অসীম ভট্টাচার্যের স্ত্রী ফাল্গুনী অধিকারী ও শ্যালক আনন্দ অধিকারী। আর হত্যাকারি অসীম ভট্টাচার্য বাংলাদেশ পুলিশের সিআইডি’তে অফিসার পদে কর্মরত আছেন।

জানা গেছে, প্রায় ৮ বছর আগে ফাল্গুনীর সঙ্গে খুলনা মহানগরের দৌলতপুরের অসীম ভট্টাচার্যের বিয়ে হয়। তাদের আরাধ্য নামের ৫ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বছর দুয়েক হল অসীম চুয়াডাঙ্গায় বদলি হওয়ায় আলমডাঙ্গায় শ্বশুর বাড়ির পাশের একটি ফ্লাট ভাড়া নেন। সদানন্দ অধিকারী জানান, তার জামাই ফাল্গুনীর সঙ্গে অন্য ছেলের সম্পর্ক আছে বলে সন্দেহ করতো। এ নিয়ে গতকাল শুক্রবার রাত ১টার দিকে ফাল্গুনীকে ব্যাপক মারধর করে অসীম। ফাল্গুনী দৌড়ে আমাদের বাড়িতে চলে আসলে অসীমও ড্যাগার হাতে ফাল্গুনীর পিছু ধাওয়া করে। 

এ সময় মেয়েকে রক্ষা করতে শাশুড়ি শেফালী অধিকারী এগিয়ে গেলে তাকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এসময় মাকে বাঁচাতে শ্যালক আনন্দ এগিয়ে আসলে তার পেটেও ড্যাগার ঢুকিয়ে দেয় অসীম। এরপর স্ত্রী ফাল্গুনীকে বেধড়ক কুপিয়ে অসীম পালিয়ে যায়। পরে শেফালী অধিকারীকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলিমুল্লাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে হত্যাকাণ্ডর ঘটেছে। ঘাতক অসীমকে আটকের চেষ্টা চলছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')