bangladesh
 12 Apr 19, 02:15 PM
 49             0

খুলনার বটিয়াঘাটার রাজবাধ গ্রামে ঐতিহ্যবাহী শ্রী শ্রী চড়ক পূজা সম্পন্ন॥

খুলনার বটিয়াঘাটার রাজবাধ গ্রামে ঐতিহ্যবাহী শ্রী শ্রী চড়ক পূজা সম্পন্ন॥

দীপ্ত রায় ॥ যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে খুলনায় বটিয়াঘাটা উপজেলার রাজবাধ গ্রামে আজ শুক্রবার সম্পন্ন হলো ঐতিহ্যবাহী শ্রী শ্রী চড়ক পূজার খেজুর ভাঙ্গা অনুষ্ঠান। সাধারণত এই চড়ক পূজা ও খেজুর ভাঙ্গা অনুষ্ঠান পালনকারী বালা সন্যাসীরা অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে বেশ কয়েকদিন ব্রত পালনের পর এই কাজ করে থাকেন। রাজবাধ গ্রামে আজ শুক্রবার বিকাল ৪ টা থেকে খেজুর ভাঙ্গা শুরু হয়ে তা সন্ধ্যা ৬ টায় শেষ হয়। টানা ৫ দিন চড়ক পূজায় অংশ নেয়া বালা-সন্যাসীরা আশপাশের বিভিন্ন গ্রামে পাট স্নান ও লীলা কীর্তন করার পর আজ এ খেজুর ভাঙ্গা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আজকের এই খেজুর ভাঙ্গা দেখার জন্য ও শিব ঠাকুরের প্রসাদ গ্রহনের জন্য ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের বিশাল সমাগম ঘটে। এই খেজুর ভাঙ্গায় অংশ নেয়া বালা সন্যাসীরা দেবাদিদেব মহাদেবের নাম করতে করতে খেজুর গাছের ভয়ঙ্কর কাটাকে উপেক্ষা করে নির্ধারিত একটি খেজুর গাছে উঠে খেজুর পেড়ে তা মানুষের দিকে ছুঁড়ে মারে এবং মানুষ সে খেজুর খুব আগ্রহের সাথে সংগ্রহ করে প্রসাদ হিসেবে গ্রহন করে এবং নিজের পরিবার পরিজনদের জন্য নিয়ে যায়।

মুলত প্রাচীন কাল থেকেই চড়ক পূজার মধ্যে দিয়েই দেবাদিদেব মহাদেব ভগবান শিবের আরাধনা করা হয়। ভগবান শিবকে তুষ্ট করতে বেশ কয়েকদিন ধরে এ পূজোয বিভিন্ন ব্রত পালন ও অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বলা হয়ে থাকে হিন্দুদের সকল পূজার মধ্যে চড়ক পূজা খুব গুরুত্বপূর্ণ। অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে অনেক কষ্ঠ সহ্য করে এই পূজার ব্রত পালন করতে হয়। এ পূজার মাধ্যমে ভগবান শিবকে তুষ্ট করতে পারলে ভক্তের মনবাসনা পুর্ন হয় বলে সনাতন ধর্মাবলম্বিদের বিশ্বাস রয়েছে।

Comments

Rajot

2019-04-12 03:49:03 PM


khub sundor dada agiya jao

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')