bangladesh
 29 Jul 19, 09:20 PM
 173             0

জাবিতে জেইউস্যাডের ১ম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

জাবিতে জেইউস্যাডের ১ম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

জাবি প্রতিনিধি: গত ২৬ জুলাই (শুক্রবার) ২০১৯ জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ধামরাই (জেইউস্যাড) এর উদ্যোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনে জাবিতে পড়ুয়া ধামরাই উপজেলার সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের ১ম পুনর্মিলনী ও ৪৮ তম আবর্তনের শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপি নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে সফলভাবে অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।সকাল ৯ টায় পুনর্মিলনীর উদ্ভোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীসহ সিনেট সদস্য সাবিনা ইয়াসমিন। এরপর একটি আনন্দর‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালিটি জহির রায়হান মিলনায়তনের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় মিলনায়তনে এসে শেষ হয়। এরপর মিলনায়তনের সেমিনার রুমে শুরু হয় স্মৃতিচারণ পর্ব। স্মৃতিচারণে অংশ নেন প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা।  এ সময় এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম।  তিনি এই আয়োজনের প্রশংসা করেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে অবদান রাখায় ধামরাইয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানান। জরুরী সিন্ডিকেট সভা থাকায় তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্য দিয়ে আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে প্রস্থান করেন।

এরপর জেইউস্যাডের আহ্বায়ক ৪৪ তম আবর্তনের সনজিৎ সরকার উজ্জ্বল ধামরাইয়ের কৃতিসন্তান সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রী আতাউর রহমান খান, সাবেক রাষ্ট্রদূত আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার আসামী  এম শামসুর রহমান খান,  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য অধ্যাপক ড. আজিজুর রহমান মল্লিক ,জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকল্প পরিচালক ড. সুরত আলী সহ বিশিষ্ট ব্যক্তির্গের পরিচিতি, ধামরাইয়ের ইতিহাস ঐতিহ্য এবং জেইউস্যাডের সূচনালগ্নের পটভূমি নিয়ে একটি প্রামাণ্য চিত্র  উপস্থাপন করেন। বর্তমানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২২ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত । প্রাক্তন শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৫ শতাধিক।এছাড়াও ১৪ জন শিক্ষক ও ৭০ জনের অধিক কর্মকর্তা কর্মচারী ক্যাম্পাসে কর্মরত।

দুপুরে কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়াতে মধ্যাহ্ন ভোজনের আয়োজন করা হয়। এরপর সেমিনার রুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।প্রথমে জেইউস্যাডের সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুর রহমান স্বাগত বক্তব্য রাখেন।তিনি উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানান ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।  এরপর  পর্যায়ক্রমে বক্তব্য রাখেন  সিনেটর সাবিনা ইয়াসমিন, সিনেটর আশীষ কুমার মজুমদার, বিশিষ্ট প্লাজমা বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. আবদুল্লাহ আল মামুন,অধ্যাপক খোরশেদ আলম, ২য় ব্যাচের জনাব সেফাতউল্লাহ, ৩য় ব্যাচের জনাব শাহাবুদ্দিন। বক্তারা ধামরাইয়ের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।   এ বছর ৪৮ তম আবর্তনের ২৩ জন শিক্ষার্থী কে নবীন বরণ দেয়া হয়।অতিথিরা ক্রেস্ট ও ফুল দিয়ে বরণ করে নেন নবীনদের।  ধামরাইয়ের জাতীয় সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহ্বাজ বেনজির আহমদ  এর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও মেডিকেল চেক আপের জন্য সিঙ্গাপুর অবস্থান করায় উক্ত অনুষ্ঠানে আয়োজকদের অনুরোধে  প্রধান অতিথির আসন গ্রহণ করেন ধামরাইয়ের সন্তান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি সভাপতি অধ্যাপক ড. অজিত কুমার মজুমদার।  তিনি সকল বাধা অতিক্রম করে জেইউস্যাডকে সামনে এগিয়ে যেতে বলেন।  তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন, জেইউস্যাড শুধু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে নয় ধামরাইয়ের শিক্ষার উন্নয়নে  ও  মাদক নির্মূলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ত্ব করেন জেইউস্যাড সভাপতি মোঃ জাহিদ হাসান।  তিনি জেইউস্যাডের ১ম রিইউনিয়ন সফলভাবে সমাপ্ত হওয়ায় সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।৪৮ তম আবর্তনের শিক্ষার্থীদের কে অভিনন্দন জানান ও শুরু থেকেই পড়ালেখায় মনোযোগী হতে পরামর্শ দেন। এছাড়া ধামরাইয়ের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক সামাজিক ও মানবিক কাজে অংশগ্রহণ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। আয়োজক কমিটির সদস্য কাজী বিজয়, ইফাত আরা লাবন্য, সনজিৎ সরকার উজ্জ্বল,শাওন খান,ফয়সাল আহমেদ, হাসিবুল ইসলাম শান্ত,সৌরভ সরকার, সজল,কামরুল ইসলাম, সুলাইমান শুভ্র ও অন্যান্য সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। 

জেইউস্যাডের ১ম কমিটির সভাপতি আহসান উল্লাহ শরীফ, সেক্রেটারি দিদার আহমেদ; ২য় কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান খান কাব্য, সেক্রেটারি শিকদার সুমন মাহমুদ অনুষ্ঠান পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।  আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মেহেদী হাসান কাব্যের নেতৃত্বে ২ ঘন্টা ব্যাপী সাংস্কৃতিক আয়োজন মাতিয়ে রাখে পুরো অডিটোরিয়াম। উল্লখ্য, ২০১৬ সালে ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ধামরাই (ইউস্যাড) এর শাখা হিসেবে জেইউস্যাড যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে স্বতন্ত্রভাবে জেইউস্যাড তার কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')