bangladesh
 14 May 18, 07:15 AM
 241             0

ইফতার সামগ্রী নিতে গিয়ে চট্টগ্রামে নিহত ১১॥ মানবিক সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দিল কবির গ্রুপ

ইফতার সামগ্রী নিতে গিয়ে চট্টগ্রামে নিহত ১১॥ মানবিক সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দিল কবির গ্রুপ

নিউজ ডেস্কঃ ইফতার সামগ্রী নিতে গিয়ে চট্টগ্রামে পদদলিত হয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই রোহিঙ্গা নারী বলে প্রাথমিকভাবে জানাগেছে। এ ঘটনায় আরও কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছেন। স্থানীয় না হওয়ায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের নাম ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি । চট্টগ্রামের উপকন্ঠ সাতকানিয়ায় আজ সোমবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে দূর্ঘটনার সাথে সাথেই ইফতার সামগ্রী বিতরনের উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান কবির গ্রুপের পক্ষ থেকে মানবিক সাহায্যর হাত বাডিয়ে দেওয়া হয়েছে । কবির গ্রুপের পক্ষ থেকে দূর্ঘটনায় নিহতদের পরিবার পিছু ৩ লাখ টাকা ও আহতদের সুচিকিৎসার সমস্ত দায়ভার নেওয়া হয়েছে বলে তাৎক্ষনিক ঘোষনা করা হয়েছে । চট্টগ্রামের জেলা প্রসাশক ও পুলিশ সুপার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ।


সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানাগেছে চট্টগ্রামের কবির গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রির মালিক স্বনামধন্য ব্যবসায়ী মো. শাহজাহান ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতিবছরই হাজার হাজার মানুষকে রমজান পূর্ববর্তী ইফতার সামগ্রী বিতরন করা হয়। গত ২০ বছর ধরে তারা অত্যন্ত সুনামের সাথেই সাতকানিয়ায় একাজ করে আসছিলেন। এবছরও একই উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ী মোঃ শাহজাহান রমজানের শুরুতেই তার বাড়ীর আশপাশের গ্রাম গুলোর ২০ হাজার পরিবারকে ইফতার দেওয়ার প্রস্তুতি নেন। সেই অনুযায়ি কার্ডও বিতরন করা হয়েছিল। সুষ্ঠভাবে এই কাজ সম্পাদন করার লক্ষ্যে তার মালিকানাধিন কবির গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রায় দুই হাজার নিরাপত্তা কর্মীকে কাজে লাগানো হয় ।পাশপাশি স্থানীয় থানা পুলিশেরও সাহায্য নেওয়া হয় ।

আজ নির্ধারিত স্থানে ৫টি গেট তৈরী করে এই ইফতার বিতরন শুরু হয়। প্রতিটি গেটে ৪ হাজার করে লোকের ইফতার সামগ্রী রাখা ছিল। মানুষ এখান থেকে সুশৃঙ্খলভাবেই ইফতার সামগ্রী সংগ্রহ করছিল।পর্যাপ্ত ইফতার সামগ্রীও মজুত ছিল। কারন ২০ হাজার লোককে ইফতার দেওয়ার কথা থাকলেও তারা বাড়তি ৭ হাজার লোকের জন্য ইফতার সামগ্রী প্রস্তুত রেখেছিলেন। সকাল থেকে বেশ ভালভাবেই চলছিল ইফতার সামগ্রী বিতরন । কিন্ত হঠাৎ করে বেশকিছু বাড়তি লোক এসে হুড়মুড় করে ঢুকে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। আর এই হুড়োহুডির মধ্যেই এই অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটে যায় । কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঝরে যায় এতগুলি তাজা প্রান।

খোঁজনিয়ে জানাযায় সম্প্রতি চট্টগ্রাম অন্চলে এই ধরনের ঘটনা বেড়েই চলেছে । গত ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত মহিউদ্দীন চৌধুরীর কুলখানিতেও পদদলিত হয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছিল । নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা নিউজ৭১ ডটকমকে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম ও তার আশপাসের গ্রাম গুলোতে রোহিঙ্গা উপস্থিতি রয়েছে । ইফতার বিতরন, ত্রান বিতরন , কুলখানির মত সামাজিক অনষ্ঠানে তারা দলবদ্ধভাবে উপস্থিত হওয়ার কারনে বিভিন্ন প্রকার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হচ্ছে । গত ডিসেম্বরে প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দীন চৌধুরীর কুলখানি ও আজ সাতকানিয়ায় এই ত্রান বিতরনে বিশৃঙ্খলা রোহিঙ্গাদের উপস্থিতির কারনেই সংগঠিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই গোয়েন্দা কর্তা ।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')