bangladesh
 18 May 19, 11:24 AM
 19             0

ছাগলেরা নিজেদের খালেদা জিয়ার চেয়েও বড় ভাবেন ॥ কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ

ছাগলেরা নিজেদের খালেদা জিয়ার চেয়েও বড় ভাবেন ॥ কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ

নিউজ ডেস্কঃ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়েও বিভিন্ন জায়গায় নানা রকমের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এলডিপি) চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ। তিনি বলেন, ২০ দলীয় ঐক্যজোট ভাঙার জন্য অনেকেই প্রক্রিয়া শুরু করেছে। সেই প্রক্রিয়া অবশ্য নির্বাচনের আগে থেকেই শুরু হয়েছিল। ইদানিং আমরা লক্ষ করছি কিছু ব্যক্তি চায় না খালেদা জিয়া মুক্তি পান। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর এলডিপি আয়োজনে একটি ক্লাবে রাজনৈতিক নেতাদের সম্মানে ইফতার মাহফিলে তিনি এ সব কথা বলেন। এলডিপির ইফতারে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম প্রমুখ।

কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ বলেন, অনেক সময় দেখা যায় দেয়াল নিচু হলে ছাগল লাফ দিয়ে পার হয়ে যায়। পাশে মালিক খাড়াইয়া থাকে। অনেক সময় মালিকের চাইতেও ছাগলের উচ্চতা বেশি হয়। ছাগল হয়তো মনে করে আমি মালিকের চাইতে বেশি উঁচু। রাজনীতিতেও এই ধরনের অনেক ছাগল আছে। তারা মনে করে খালেদা জিয়ার চাইতেও তারা অনেক বড় নেতা। তিনি (খালেদা জিয়া) যদি জেল থেকে বের হন তাদের অসুবিধা হতে পারে। অলি আরও বলেন, আমরা আমাদের পক্ষ থেকে যথাসাধ্য চেষ্টা করবো। প্রেস ক্লাব থেকে আমরা শুরু করেছি। আজকেও আমরা একই কথাগুলো বলছি। আগামীতেও বলবো। আমরা দেশের সব জায়গায় যাবো। এতে আমরা সরকারের বিরুদ্ধে কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হবো না। দেশ ও দেশের মানুষকে বাচাঁনোর জন্য যুদ্ধ করেছি। দেশের মানুষকে হত্যা, ক্ষতি বা উন্নয়নকে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য নয়।

বর্তমান সরকারের আমলে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে তা অস্বীকার করার উপায় নেই উল্লেখ করে অলি বলেন, তবে দেশে ৭৭ শতাংশ যৌন হয়রানি হচ্ছে। গ্রামের মানুষের অবস্থা খুব খারাপ। কৃষকরা ধানের দাম না পেয়ে পুড়িয়ে দিচ্ছে। আগামী ২-৩ দিন মাসের মধ্যে দেশে অর্থনৈতিকভাবে ব্যাপক ধস নামতে পারে। অলি আরও বলেন, ২০০৫ সালে আমরা মনে করেছিলাম রাজনীতিতে ভুল হচ্ছে। সেই জন্য উপমহাদেশে একটি নজিরবিহীন ঘটনা ঘটেছে। তিনজন মন্ত্রীসহ ৩২ জন সংসদ সদস্য নিয়ে বিদ্রোহ করেছিলাম। সেটা বিএনপির বিরুদ্ধে ছিল না, দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতির বিরুদ্ধে ছিল। আজকে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি একশতভাগ খারাপ। আমরা ২০ দলীয় জোট কি ঘরে বসে থাকবো। একজন আরেক জনের সমালোচনা করবো। সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো। ভোটের অধিকার রক্ষায় সংগ্রাম করবো। বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে দূশাসনের বিরুদ্ধে মানুষের ঐক্য গড়ে তুলবো।

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')