international
 21 Jul 19, 01:40 PM
 46             0

পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার॥মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে ফোন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের  

পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার॥মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে ফোন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের   

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাজ্যের নতুন রাজ্যপাল হলেন সুপ্রিম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী জগদীপ ধনকার। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধনকারের নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি শনিবারই রাষ্ট্রপতির সচিবালয়ের তরফে জারি করা হয়েছে। এই রাজ্যপাল নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করেই এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টেলিফোন করে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি থাকাকালীন বরাবরই মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে এসেছেন অমিত শাহ। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনের প্রচারপর্বেও শাহ-মমতার রাজনৈতিক বৈরিতা চরমে পৌঁছেছিল। সেই অমিত শাহ কেন্দ্রে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদে আসীন হওয়ার পর রাজ্যপাল নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে টেলিফোন করে যে সৌজন্য প্রদর্শন করেছেন এবং প্রত্যুত্তরে মমতা যে শিষ্টাচার দেখিয়েছেন, তা অভূতপূর্ব বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর রীতি মেনে রাজ্যপাল নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে টেলিফোনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে শুধু নিজের সন্তোষ প্রকাশ করাই নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় অমিত শাহের সঙ্গে তাঁর কথাবার্তা এবং রাজ্যপালকে স্বাগত জানানোর প্রসঙ্গটিও ব্যক্ত করেছেন মমতা। যদিও অনেকেই বলছেন, রাজ্যপাল নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর নিয়মরক্ষার কারণেই মুখ্যমন্ত্রীকে টেলিফোন করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

 

ভাবী রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার আদতে রাজস্থানের বাসিন্দা। পেশায় আইনজীবী। বিদায়ী রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠিও আইনজীবী ছিলেন। ৬৮ বছর বয়সি ধনকার কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন ২০০৩ সালে। তার আগে ১৯৮৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে রাজস্থানের ঝুনঝুনু কেন্দ্র থেকে জনতা দলের টিকিটে নির্বাচিত হয়ে ভি পি সিং সরকারেরর মন্ত্রিসভায় ন’মাসের জন্য আইনমন্ত্রকের উপমন্ত্রী ছিলেন। এরপর ১৯৯৫ সালে রাজস্থানের কিষাণগড় বিধানসভা কেন্দ্র থেকে কংগ্রেসের টিকিটে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর অবশ্য আর সংসদীয় রাজনীতিতে পা দেননি ধনকার। একসময়ে রাজস্থান হাইকোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতির পদও সামলেছেন তিনি। ছিলেন রাজস্থান ক্রীড়া সংগঠন ও রাজ্য ওলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতিও। রাজ্যপাল নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে এদিন দুপুরে পরপর দুটি ট্যুইট করেন মমতা। প্রথমটিতে তিনি লেখেন, ‘জগদীপ ধনকারকে বাংলার নতুন রাজ্যপাল হিসেবে স্বাগত জানাই। আমি সংবাদমাধ্যম থেকে এইমাত্র খবর পেলাম। ওঁনাকে আমাদের সুন্দর রাজ্যে স্বাগত।’ এরপর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিফোন করেন মুখ্যমন্ত্রীকে। ট্যুইটে মমতা লেখেন, ‘বাংলায় নতুন রাজ্যপাল নিয়োগ সম্বন্ধে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এইমাত্র কথা হল। আমি ওঁনাকে জানিয়েছি যে, আমি ইতিমধ্যেই নতুন রাজ্যপালকে স্বাগত জানিয়েছি।’ ভাবী রাজ্যপালকে স্বাগত জানিয়েছেন তাঁর পূর্বসূরি কেশরীনাথ ত্রিপাঠিও। এদিন সাংবাদিকদের কেশরীনাথ বলেন, ‘নতুন রাজ্যপালকে স্বাগত জানাই এই সুন্দর রাজ্যে।’

Comments

নিচের ঘরে আপনার মতামত দিন

')